ট্রাম্পের ইউটিউব চ্যানেল বন্ধ করে দেওয়া হলো । Trump's YouTube channel was shut down

ট্রাম্পের ইউটিউব চ্যানেল বন্ধ করে দেওয়া হলো
Trump's YouTube channel was shut down


Trump's YouTube channel was shut down
ট্রাম্পের ইউটিউব চ্যানেল
বন্ধ করে দেওয়া হলো
এর আগে ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গুলো বন্ধ করে দেওয়া হয় । সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিভিন্ন একাউন্ট বন্ধের তালিকায় সর্বশেষে যুক্ত হলো গুগলের মালিকানাধীন ভিডিও শেয়ারিং সাইট ইউটিউব । সূত্র: বিবিসি

গতকাল ১৩ জানুয়ারি গুগোল এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আগামী সাতদিন পর্যন্ত ডোনাল্ড ট্রাম্প ইউটিউবে নতুন কোন ভিডিও আপলোড দিতে পারবেন না অথবা কোন ভিডিও সরাসরি সম্প্রচারও করতে পারবেন না । এই নিষেধাজ্ঞার সময়সীমা আরো বাড়ানো হতে পারে । মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে ক্যাপিটাল ভবনে সহিংসতার পক্ষে উস্কানি দেওয়ার মাধ্যমে ডোনাল্ড ট্রাম্পের চ্যানেল ইউটিউব এর নীতি ভঙ্গ করেছে বলে গুগল এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে ।

গুগলের কর্তৃপক্ষ তাদের বিবৃতিতে জানায়, যাচাই করার পর এবং সহিংসতার সম্ভাবনার ব্যাপারে উদ্বেগ থাকায় ইউটিউব তথা আমাদের নীতি ভঙ্গের কারণে ডোনাল্ড ট্রাম্পের চ্যানেলে নতুন কনটেন্ট আপলোড এর সুযোগ আমরা বন্ধ করে দিয়েছি । সহিংসতার ব্যাপারে উদ্বেগ কারণে আমরা অনির্দিষ্টভাবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের চ্যানেলে মন্তব্য করার সুযোগ বন্ধ করে দিতে পারি । মন্তব্য সেকশনে নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ থাকায় আমরা এরকম পদক্ষেপ আরো কিছু চ্যানেলের বিরুদ্ধে নিয়েছি । উল্লেখ্য, একাধিক নাগরিক অধিকার সংগঠন ইউটিউবে বিজ্ঞাপন বন্ধের হুমকি দেওয়ার পরপরই গুগোল এই পদক্ষেপ নিয়েছে ।

গত ২০২০ সালে ফেসবুকের বিরুদ্ধে একই রকম উদ্যোগ নিয়েছিল আইনজীবী জিম স্টেয়ার । তিনি ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে আরো ব্যবস্থা নিতে গুগলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন, যেন ইউটিউবের চ্যানেলটি অফলাইন করে দেওয়া হয় । সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে এক পোস্টের মাধ্যমে জিম বলেন, আমরা আশা করি গুগোল এটি স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেবে । এটি হতাশাজনক যে এই পদক্ষেপ নিতে ডোনাল্ড ট্রাম্পের উস্কানিমূলক আক্রমণ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হলো । তবে দেখা যাচ্ছে যে, বড় প্ল্যাটফর্ম গুলো ব্যবস্থা নিতে শুরু করেছে । তবে গুগল জানিয়েছে, তাদের তিন ধাপের নীতি ভঙ্গ করলে ডোনাল্ড ট্রাম্পের চ্যানেল স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেওয়া যেতে পারে ।

উল্লেখ থাকে যে, ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রাম এরইমধ্যে ডোনাল্ড ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে । আগামী ২০ জানুয়ারি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরের আগ পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে । তবে টুইটার ডোনাল্ড ট্রাম্পের একাউন্ট স্থায়ী ভাবে বন্ধ করে দিয়েছে ।।

আরও পড়ুন : আমেরিকা কি গৃহযুদ্ধের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে? । Is America heading towards civil war?

Post a Comment

Please do not enter any spam link in the comment box.

Previous Post Next Post